প্রযুক্তি

Type Here to Get Search Results !

চবির ভর্তি পরীক্ষায় আসন প্রতি লড়বেন ২৯ জন

চবির ভর্তি পরীক্ষায় আসন  প্রতি লড়বেন ২৯ জন


চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের ২০২১-২২ শিক্ষাবর্ষের ভর্তি পরীক্ষায় প্রতি আসনের বিপরীতে ২৯ জন শিক্ষার্থী প্রতিদ্বন্দিতা করবেন। গত শুক্রবার আবেদন ফি জমা দেয়ার সময়সীমা শেষ হয়েছে।  অনলাইনে আবেদন করেও ১৪ হাজার ৭৬৬ জন ভর্তি–ইচ্ছুক টাকা জমা না দেওয়ায় ভর্তি পরীক্ষায় অংশ নেওয়ার সুযোগ পাচ্ছে না।

জানা গেছে, ২০২০-২১ শিক্ষাবর্ষের তুলনায় এবার ভর্তি আবেদন কমেছে। ২০২১-২২ শিক্ষাবর্ষে প্রথম বর্ষ (সম্মান) ভর্তি পরীক্ষায় চার ইউনিট ও দুই উপ-ইউনিটে ৪ হাজার ৯২৬টি আসনের জন্য চূড়ান্তভাবে আবেদন করেছেন ১ লাখ ৪৩ হাজার ৭২৪ জন শিক্ষার্থী। সে হিসেবে প্রতি আসনের বিপরীতে লড়বেন ২৯ জন শিক্ষার্থী।

আজ শনিবার সকালে বিশ্ববিদ্যালয়ের আইসিটি সেল থেকে এ তথ্য জানা যায়। এর আগে শুক্রবার রাত ১১টা ৫৯ মিনিটে ভর্তি আবেদন ফি জমাদানের সময় শেষ হয়।

তথ্যমতে, ‘এ’ ইউনিটে ১ হাজার ২১২টি আসনের বিপরীতে আবেদন করেছেন ৫৪ হাজার ১০৪ জন শিক্ষার্থী। এই ইউনিটে প্রতি আসনের বিপরীতে ভর্তি–ইচ্ছুক শিক্ষার্থীর সংখ্যা ৪৫ জন।

‘বি’ ইউনিটে ১ হাজার ২২১টি আসনের বিপরীতে আবেদন করেছেন ৩৫ হাজার ৭৭৯ জন শিক্ষার্থী। এই ইউনিটে প্রতি আসনের বিপরীতে ভর্তির জন্য লড়বেন ২৯ জন।

‘সি’ ইউনিটে ৪৪১টি আসনের বিপরীতে আবেদন করেছেন ১১ হাজার ৬০ জন শিক্ষার্থী। এই ইউনিটে প্রতি আসনে ভর্তির জন্য লড়বেন ২৫ জন।

‘ডি’ ইউনিটে ১ হাজার ১৬০টি আসনের বিপরীতে ৩৯ হাজার ৩৯১ জন আবেদন করেছেন। সম্মিলিত এই ইউনিটে প্রতি আসনের বিপরীতে ৩৪ জন লড়বেন।

দুইটি উপ-ইউনিটের মধ্যে ‘বি-১’ ইউনিটে ১২৫টি আসনের বিপরীতে আবেদন করেছেন ১ হাজার ৫৭৯ জন। এই উপ-ইউনিটে প্রতি আসনের বিপরীতে ভর্তির জন্য লড়বেন ১৩ জন। আর ‘ডি-১’ উপ-ইউনিটে ৩০টি আসনের বিপরীতে ১ হাজার ৮১১ জন প্রার্থী আবেদন করেছেন। এই উপ ইউনিটে আসন প্রতি লড়বে ৬০ জন।

বিশ্ববিদ্যালয়ের আইসিটি সেলের পরিচালক অধ্যাপক ড. মোহাম্মদ খাইরুল ইসলাম বলেন, নির্ধারিত সময়ের মধ্যে ১ লাখ ৪৩ হাজার ৭২৪ জন শিক্ষার্থী টাকা জমা দিয়েছেন। আবেদন ফি জমা না দেয়ায়  ১৪ হাজার ৭৬৬ জন ভর্তি-ইচ্ছুক পরীক্ষায় অংশ নিতে পারবেন না।

Post a Comment

0 Comments
* Please Don't Spam Here. All the Comments are Reviewed by Admin.